সুদিন শেয়ারবাজারে, বিক্রেতাশূন্য ব্যাংক

Uncategorized

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের ৩১টি কোম্পানির শেয়ারে রীতিমতো সুবাতাস লেগেছে। দীর্ঘদিন এই খাতের শেয়ার নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাদের ‘অনীহা’ থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ে বেড়েছে আগ্রহ। ফলে এ খাতের সবগুলো কোম্পানির শেয়ার দরই ইতিবাচক পর্যায়ে এসেছে।

বাজার বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, চলতি সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস আজ বুধবার তালিকাভুক্ত ৩১টি ব্যাংকের মধ্যে লেনদেন হওয়া সব ব্যাংকের দামই বেড়েছে। এখাতের লেনদেনের উপর ভর করেই এদিন দুই হাজার ৯৯ কোটি টাকার লেনদেন হয় বাজারে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লভ্যাংশ ঘোষণা সংক্রান্ত রেকর্ড ডেটের কারণে আজ এবি ব্যাংকের লেনদেন বন্ধ ছিল। এই ব্যাংকটি বাদে বাকি ৩০টি ব্যাংকের শেয়ার দরই বেড়েছে।

গত এক সপ্তাহ ধরে ঊর্দ্ধমুখি প্রবণতায় থাকা নতুন তালিকাভুক্ত ব্যাংক এনআরবি কমার্শিয়াল বা এনআরবিসি ব্যাংকের শেয়ারদর আজও বেড়েছে। গত কার্যদিবসের চেয়ে ২ টাকা ১০ পয়সা বেড়ে দাম দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ১০ পয়সা। ১২ কার্যদিবস আগেও ব্যাংকটির শেয়ারদর ছিলো ১১ টাকা ৬০ পয়সা।

এদিকে দর বৃদ্ধির প্রান্তসীমা ছুঁয়েছে দুইটি ব্যাংক। সাউথ ইস্ট ও এনসিসি ব্যাংক। ঢাকা ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শেয়ারদরও দাম বৃদ্ধির সর্বোচ্চ সীমা ছুঁয়েছিলো। কিন্তু দিন শেষে তা ধরে রাখতে পারেনি।

দিন শেষে ঢাকা ব্যাংকের ৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ, ওয়ান ব্যাংকের ৭ দশমিক ৪০ শতাংশ, প্রাইম ব্যাংকের ৫ দশমিক ৮৩ শতাংশ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ৫ দশমিক ৭১ শতাংশ এবং মার্কেন্টাইল ব্যাংকের দর বেড়েছে ৪ দশমিক ৯১ শতাংশ।

মহামারির মধ্যেও আকর্ষণীয় লভ্যাংশ ঘোষণা করায় ব্যাংকের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের বেশি আগ্রহ তৈরি হয়েছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। এছাড়া ব্যাংকগুলো চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে গত বছরের একই সময়ের চেয়ে বেশি মুনাফা করায় শেয়ার দর বাড়ছে বলেও মনে করছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *